Skip to content

নামজারি খতিয়ান চেক করার নিয়ম 2024

নামজারি খতিয়ান চেক করা এখন একদম সহজ, আপনার ব্যাবহার করা হাতের মোবাইল দিয়েই এখন নামজারি খতিয়ান চেক করা যায়। আপনিও চাইলে ঘড়ে বসে নিজের মোবাইল দিয়ে নামজারি খতিয়ান চেক করতে পারবেন। এর জন্য আপনার তেমন কোন তথ্যেরও প্রয়োজন হবেনা। আপনার কাছে যদি নামজারি খতিয়ানএর নাম্বার অথবা খতিয়ান মালিকানা নাম জানা থাকে তাহলেই আপনি অনলাইনে নামজারি খতিয়ান চেক করতে পারবেন। 

এছাড়াও আপনি চাইলে আর এস খতিয়ান অনুসন্ধান করতে পারেবন এবং এই রকম যত গুলো সার্ভে খতিয়ান আছে অর্থাৎ সকল ধরনের ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করতে পারবেন। 

নামজারি খতিয়ান চেক করার জন্য আপনাদের যেতে হবে বাংলাদেশ ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে লিংক… https://www.eporcha.gov.bd তারপর সেখান থেকে নামজারি খতিয়ান মেনু বাছাই করুন এবং আপনার ঠিকানা সহ নামজারি খতিয়ান নাম্বার সাবমিট করুন তাহলেই আপনার নামজারি খতিয়ানএর তথ্য দেখতে পারবেন। 

তবে হ্যাঁ আপনার কাছে যদি নামজারি খতিয়ান নাম্বার না থাকে তাহলে আপনি মালিকানা এবং দাগ নাম্বার ব্যাবহার করেও নামজারি খতিয়ান চেক করতে পারবেন। 

নামজারি খতিয়ান সঠিক ভাবে চেক করার জন্য বিস্তারিত জানুন। 

প্রথমেই জেনে নেই নামজারি খতিয়ান অনুসন্ধান করার জন্য কি কি ডকুমেন্ট দরকার হবে। 

নামজারি খতিয়ান চেক করার জন্য কাগজপত্র 

নামজারি খতিয়ান চেক করার জন্য প্রথমেই লাগবে আপনার জমির স্থানের ঠিকানা অর্থাৎ বিভাগ, জেলা, উপজেলা। তারপর লাগবে জমির নামজারি খতিয়ান নাম্বার অথবা জমির মালিকানা নাম কিংবা দাগ নাম্বার। আপনার কাছে যদি দাগ নাম্বার, মালিকানা নাম এবং খতিয়ান নাম্বার এই তিনটি তথ্যের মধ্যে যেকোন একটি থাকে তাহলেই আপনি নামজারি খতিয়ান যাচাই করতে পারবেন। 

নামজারি খতিয়ান অনুসন্ধান করার জন্য তথ্য গুলো হলোঃ 

  • জমির দাগ নাম্বার, মালিকানা নাম, নামজারি খতিয়ান নাম্বার। 
  • বিভাগ, জেলা, উপজেলা। 

নামজারি খতিয়ান চেক করার নিয়ম 

নামজারি খতিয়ান চেক করার জন্য এই লিংক কপি করে আপনার মোবাইলের যেকোন একটি ব্রাউজারে পেস্ট করে ইন্টার ছাপুন। লিংক https://www.eporcha.gov.bd এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করারপর নামজারি খতিয়ান মেনুতে ছাপ দিন। তারপর আপনার জমির ঠিকানা এবং নামজারি খতিয়ান নাম্বার বসিয়ে সাবমিট করে তথ্য দেখার জন্য খুঁজুন বাটনে ছাপ দিন। 

নামজারি খতিয়ান চেক বিস্তারিত ভাবে ধাপ অনুযায়ী

https://www.eporcha.gov.bd ওয়েবসাইটে প্রবেশ করারপর প্রথমেই আপনাকে নামজারি খতিয়ান মেনু বাছাই করতে হবে, আপনি যদি অন্যান্য খতিয়ান অর্থাৎ বি আর এস খতিয়ান, সি এস খতিয়ান, আর এস খতিয়ান অনুসন্ধান করতে চান তাহলে মেনু থেকে সার্ভে খতিয়ান মেনু বাছাই করবেন। 

নামজারি খতিয়ান মেনু বাছাই করার পর প্রথমে আপনার জমির বিভাগ নির্বাচন করুন, তারপর জেলা, এবং উপজেলা বাছাই করুন। মনে রাখবেন এই ঠিকানা অবশ্যই আপনার ঠিকানা নয়, এখানে আপনার জমির স্থানের ঠিকানা বাছাই করতে হবে। 

ঠিকানা বাছাই করার পর খতিয়ানের তালিকা অপশনে আপনার নামজারি খতিয়ান নাম্বারটি টাইপ করুন, তারপর খুঁজুন বাটনে ছাপ দিলেই দেখতে পারবেন আপনার নামজারি খতিয়ান চেক করা হয়েছে এখানে আপনার নামজারি খতিয়ানের বিভিন্ন তথ্য দেখতে পারবেন। 

তবে আপনার কাছে যদি নামজারি খতিয়ান নাম্বার না থাকে তাহলে আপনি দাগ নাম্বার কিংবা মালিকানা নাম দিয়েও নামজারি খতিয়ান অনুসন্ধান করতে পারবেন। 

নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই | দাগ নাম্বার দিয়ে জমির মালিকের নাম যাচাই

নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই এবং দাগ নাম্বার দিয়ে জমির মালিকের নাম যাচাই করার জন্য পূর্বে দেখানো নিয়ম অনুযায়ী সকল কিছু সাবমিট করার পর খতিয়ানের তালিকা অপশনে এসে দেখতে পারবেন অধিকতর অনুসন্ধান নামে একটি বাটন আছে, এই বাটনে ক্লিক করবেন, ক্লিক করলেই আপনাকে আরও দুটি অপশন দিবে একটি হলো মালিকানা নাম, অপরটি দাগ নাম্বার। 

এই দুটি অপশন পাওয়ার পর আপনার কাছে যেই তথ্য আছে অর্থাৎ আপনার কাছে যদি দাগ নাম্বার থাকে তাহলে আপনি দাগ নাম্বার বসিয়ে খুঁজুন বাটনে ক্লিক করবেন, এবং যদি মালিকানা নাম থাকে তাহলে মালিকানা নাম বসিয়ে খুঁজুন বাটনে ক্লিক করবেন। 

এই হলো নামজারি খতিয়ান চেক করার নিয়ম।

নামজারি খতিয়ান ডাউনলোড | জমির খতিয়ান ডাউনলোড 

জমির খতিয়ান ডাউনলোড করার জন্য আপনার প্রয়োজন হবে খতিয়ান আবেদন করার, আবেদন করার জন্য আপনার আরও কিছু তথ্য প্রয়োজন হবে, কি কি তথ্য লাগবে? কিভাবে খতিয়ান আবেদন করবেন? এবং অরিজিনাল কপি পাওয়ার জন্য কত টাকা লাগবে? বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন এখানে। জমির খতিয়ান ডাউনলোড করার নিয়ম।

খতিয়ান অনুসন্ধান সংক্রান্ত আরও পোষ্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *